দেশবাসী সকলে পালন করলো পহেলা বৈশাখ। বাইরে যেতে না পারলেও অনেকে ঘরেই বৈশাখের পোশাক পরে ছবি তুলে যোগাযোগ মাধ্যমে।

ঘরের বাইরে যাওয়ার জো নেই। যারা জরুরি কাজে বেরিয়েছেন তারাই নানা স্থানে বাধার সম্মুখীন হন। ঘোরাঘুরির তো প্রশ্নই ওঠে না। তাই ঘরে বসেই পারিবারিক আবহে নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে দিনভর পালিত হলো পহেলা বৈশাখ।

করোনাভাইরাসের প্রকোপে প্রায় মাসব্যাপী সাধারণ ছুটিতে এখন গৃহবন্দি সারাদেশের মানুষ। ফলে এবার অনেকটাই চাঞ্চল্যহীন নববর্ষ বরণ উৎসব। স্বাধীনতার পর এবারই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত হয়নি।

এমনিভাবে রাজধানী ও রাজধানীর বাইরে বিভিন্ন স্থানে খবর নিয়ে জানা গেছে, এবারের বৈশাখ অনেকে ঘরেই পালন করেছেন। অনেক পরিবার ছেলে-মেয়ের আবদার মেটানোর জন্য বাড়িতেই পান্তা ইলিশ, আম-ডাল, শুঁটকি, কালোজিরা, তিল ও আলুর ভর্তাসহ বাংলা খাবারের আয়োজন করে বাসায় বাসায়। নিজেরাই পারিবারিকভাবে ঘরের মধ্যে পালন করেছে বৈশাখের উৎসব। গ্রামের বাড়িতেও বাবা-মা তাদের ছেলে-মেয়েদের ঘর থেকে বের হতে দেননি।