ত্বকের যত্নে নারকেল তেলের ব্যবহার

শুধু চুলের পরিচর্যার জন্যই নয়, ত্বকের যত্নেও সমান কার্যকর নারকেল তেল। এটি ত্বকের ময়েশ্চারাইজ ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আবার এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই। তাই ত্বকের যে কোনো সমস্যায় নারকেল তেলকে মহৌষধ হিসেবে গণ্য করেন আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞরা। আবার মেকআপ করা থেকে এটি তোলার কাজটিও করে থাকে এই তেল। হাতের নাগালেই পাওয়া যায় এবং সহজলভ্য হওয়ায় ত্বকের যত্নে নারকেল তেলই সেরা।

কাজেই জেনে নিন ত্বকের যত্নে কীভাবে ব্যবহার করবেন এই তেল-

বয়স কমাতে

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে বার্ধক্যের নানা ছাপ পড়ে যায়। কাজেই এসব সমস্যা মোকাবেলায় নিয়মিত নারকেল তেল ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

মেকআপ করতে

আপনি আপনার চেকবোনকে হাইলাইটার ছাড়াই আকর্ষণীয় করে তুলতে চান? চিন্তা নেই। চেকবোনে কয়েকফোঁটা নারকেল তেল লাগিয়ে নিন। পরে ফলাফলটা নিজেই টের পাবেন।

শুষ্ক হাতের যত্নে

শুষ্ক হাতের ময়েশ্চারাইজার ধরে রাখার সবচেয়ে সহজলভ্য এবং কার্যকর উপাদান হচ্ছে নারকেল তেল। কাজেই হাতের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে নারকেল তেল ব্যবহারের বিকল্প নেই।

ত্বকের সমস্যা রোধে

নারকেল তেলে অ্যান্টি-ফাংগাল এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উভয় বৈশিষ্ট্য রয়েছে। ফলে নিয়মিত এ তেল ব্যবহারে ত্বকের নানা সমস্যা রোধ হয়।

শেভিং-এ

পা দুটো লোমমুক্ত করার আগে সেখানে নারকেল তেল লাগিয়ে নিন। এতে মাইক্রোবিয়াল থাকায় তা পা দুটোকে মসৃণ করতে সাহায্য করে। একইসঙ্গে শেভিং করার সময় এটি পিচ্ছিলকারক পদার্থ হিসেবে কাজ করে।

চুলের যত্নে

গোসলের কিছুক্ষণ আগে চুলে তেল লাগিয়ে নিন। এবার গোসলের সময় শ্যাম্পু করুন। দেখবেন চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে এবং স্বাস্থ্যকর।

মেকআপ তুলতে

মেকআপ তুলতেও নারকেল তেলের বিকল্প নেই। এজন্য তুলোয় কয়েক ফোঁটা নারকেল তেল নিয়ে চোখের আশেপাশে আস্তে আস্তে ঘষুণ। দেখবেন মেকআপ সহজেই উঠে যাবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *